করোনা মোকাবেলায় প্রাণ-আরএফএল এর উদ্যোগে নির্মিত হলো আইসোলেশান ইউনিট।

Published on: 02nd April, 2020

:  প্রাণ আরএফএল গ্রুপের উদ্যোগে করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) সংক্রমণ মোকাবিলায় রোগীদের সুচিকিৎসা নিশ্চিত করতে আমজাদ খান চৌধুরী মেমোরিয়াল হাসপাতালে প্রস্তুত করা হয়েছে আইসোলেশন ইউনিট। রোগীদের ২৪ ঘন্টা সেবা দেবে নাটোর সদরের চাঁদপুরে অবস্থিত আমজাদ খান চৌধুরী মেমোরিয়াল হাসপাতাল সংলগ্ন এই আইসোলেশন ইউনিট টি। এ বিষয়ে প্রাণ-আরএফএল গ্রুপের বিপণন পরিচালক কামরুজ্জামান কামাল বলেন, ‘আমাদের আইসোলেশন ইউনিটটি স্থাপনের সব প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। রোগীদের বিনামূল্যে আমরা চিকিৎসাসেবা দেব। এ ব্যাপারে স্বাস্থ্য অধিদফতরের কাছে অনুমোদন চেয়ে একটি চিঠি দেয়া হয়েছে। আশা করছি এ সপ্তাহের মধ্যে অনুমোদনটি পেয়ে যাব।’ আইসোলেশান ইউনিটের প্রস্তুতি এবং সেবা সম্পর্কে আমজাদ খান চৌধুরী মেমোরিয়াল হাসপাতালের সমন্বয়কারী ডা. রাজিব উল ইসলাম বলেন, ‘করোনাভাইরাস সংক্রমণের জরুরি পরিস্থিতি মোকাবিলায় হাসপাতালের একটি ভবনে আইসোলেশন ইউনিট খোলা হয়েছে। হাসপাতালের মেডিসিনসহ কয়েকটি বিভাগের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের সমন্বয়ে গঠিত টিম ২৪ ঘণ্টা রোগীদের সেবা দেয়ার জন্য প্রস্তুত। এজন্য তাদের বিশেষ প্রশিক্ষণ দেয়া হয়েছে। জেলা সিভিল সার্জনের পরামর্শে এই আইসোলেশন ইউনিট পরিচালিত হবে।' আইসোলেশান ইউনিটে করোনা রোগীরা আগমন করলে অন্যদের ক্ষতি হবার সম্ভাবনা আছে কি'না জানতে চাইলে তিনি বলেন, যেহেতু আলাদা ভবনে আইসোলেশান ইউনিট তৈরি করা হয়েছে, সেক্ষেত্রে কোন অসুবিদা হবে না। বরং হাসপাতালের অন্যান্য চিকিৎসা সেবা স্বাভাবিক থাকবে। প্রাণ-আরএফএল গ্রুপ বিশ্বাস করে, দেশের এ ক্রান্তিলগ্নে মানুষের পাশে এসে দাঁড়ানো তাদের নৈতিক দ্বায়িত্ব।