জাতীয় উৎপাদনশীলতা পুরস্কার পেল প্রাণ-আরএফএল গ্রুপের ৪ প্রতিষ্ঠান

Published on: 28th July, 2019

শিল্পখাতে উৎপাদনশীলতা বাড়ানোসহ বিশেষ অবদানের জন্য ন্যাশনাল প্রোডাক্টিভিটি অ্যান্ড কোয়ালিটি এক্সিলেন্স অ্যাওয়ার্ড-২০১৮ পেল দেশের বৃহৎ শিল্পগোষ্ঠী প্রাণ-আরএফএল গ্রুপের চার প্রতিষ্ঠান।
প্রতিষ্ঠানগুলো হলো- ময়মনসিংহ এগ্রো, অলপ্লাস্ট বাংলাদেশ লিমিটেড, বঙ্গ বেকারস লিমিটেড এবং সান বেসিক কেমিক্যালস।

রোববার রাজধানীর কাকরাইলে আইডিইবি ভবনে আনুষ্ঠানিকভাবে প্রতিষ্ঠানগুলোর প্রতিনিধিদের হাতে পুরস্কারের সনদ ও ট্রফি তুলে দেন শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন।
শিল্পসচিব আবদুল হালিমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন শিল্প প্রতিমন্ত্রী কামাল আহমেদ মজুমদার, ন্যাশনাল প্রোডাক্টিভিটি অর্গানাইজেশনের (এনপিও) পরিচালক এসএম আশরাফুজ্জামান।
জুস, কোমলপানীয় তৈরি করছে ময়মনসিংহ এগ্রো লিমিটেড। প্রতিষ্ঠানটি বৃহৎ শিল্প ক্যাটাগরির খাদ্য উপ-খাতে প্রথম পুরস্কার পেয়েছে। শিল্পমন্ত্রীর কাছ থেকে পুরস্কার গ্রহণ করেন প্রতিষ্ঠানটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক ইলিয়াছ মৃধা।
অলপ্লাস্ট বাংলাদেশ লিমিটেড দেশের শীর্ষস্থানীয় প্লাস্টিক উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান। বৃহৎ শিল্প ক্যাটাগরির কেমিক্যাল উপ-খাতে নির্বাচিত হয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। অলপ্লাস্ট বাংলাদেশের পক্ষে সনদ ও ট্রফি গ্রহণ করেন প্রতিষ্ঠানটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. সাঈদ হোসেন চৌধুরী।
প্রাণ-আরএফএল গ্রুপের বেকারি পণ্য উৎপাদনকারী অন্যতম প্রতিষ্ঠান বঙ্গ বেকারস লিমিটেড। উৎপাদনশীলতা বাড়ানোসহ বিশেষ অবদানের জন্য ক্ষুদ্র শিল্প ক্যাটাগরিতে প্রথম হওয়া প্রতিষ্ঠানটির পক্ষে পুরস্কার গ্রহণ করেন বঙ্গ বেকারস-এর চিফ অপারেটিং অফিসার অনিমেশ সাহা।

সাবান, শ্যাম্পু, নারকেল, লিকুইড ডিশ ওয়াশিং, হ্যান্ডওয়াশ, টয়লেট ক্লিনারসহ সব ধরনের লন্ড্রি পণ্য উৎপাদনকারী অন্যতম প্রতিষ্ঠান সান বেসিক কেমিক্যাল লিমিটেড। ক্ষুদ্র শিল্পে দ্বিতীয় স্থান অধিকারী প্রতিষ্ঠানটির পক্ষে পুরস্কারের সনদ ও ট্রফি গ্রহণ করেন চিফ অপারেটিং অফিসার রুহুল এস তালুকদার সুমন।
পুরস্কারপ্রাপ্ত প্রতিষ্ঠানগুলোর প্রতিনিধিদের পক্ষে বক্তব্য রাখেন প্রাণ গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) ইলিয়াছ মৃধা। তিনি বলেন, প্রতিযোগিতামূলকভাবে পণ্য উৎপাদন, বিপণন ও গুণগত মান নিশ্চিতের ক্ষেত্রে আমাদের অনুপ্রেরণা জোগাচ্ছে। ন্যাশনাল প্রোডাক্টিভিটি অ্যান্ড কোয়ালিটি এক্সিলেন্স অ্যাওয়ার্ডের মতো সম্মাননা প্রদান অত্যন্ত ভালো একটি উদ্যোগ। এভাবে শিল্পকে পুরস্কৃত করলে আগামীতে এ খাত আরও এগিয়ে যাবে। প্রাণ-আরএফএল গ্রুপ-এর চারটি প্রতিষ্ঠান বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে পুরস্কার পেয়েছে। এভাবে অনুপ্রেরণা দেয়া হলে বাংলাদেশে আরও অনেক শিল্প গতিশীল হবে বলে প্রত্যাশা করেন তিনি।
এছাড়া ২০১৮ সালে ৬টি ক্যাটাগরিতে প্রাণ-আরএফএল গ্রুপের চার প্রতিষ্ঠানসহ ২৮টি শিল্পপ্রতিষ্ঠানকে ন্যাশনাল প্রোডাক্টিভিটি অ্যান্ড কোয়ালিটি এক্সিলেন্স অ্যাওয়ার্ড-এ পুরস্কার দেয়া হয়। এর মধ্যে বৃহৎ, মাঝারি, ক্ষুদ্র, মাইক্রো, কুটির এবং রাষ্ট্রায়ত্ত শিল্পপ্রতিষ্ঠান রয়েছে।